শিশু বিচিত্রা-১

অপরাহ্ণ সুসমিতো



১.
শিশুরা ইচ্ছামতো মিষ্টি খেতে পারে যদি না কোনো আলাদা ঝামেলা থাকে। কারণ এ সময় ওরা খুব দ্রুত বড় হতে থাকে। ১৬ বছর বয়সে হাড়ের বৃদ্ধি থেমে যায়,তখন কোনো কোনো খাবারকে ওরা নিজেরাই বলবে ‘চড়া মিষ্টি’।
২.
তোমরা কি জানো যে ক্যাঙ্গারু পেছনের দিকে হাঁটতে পারে না..
৩.
গড়পড়তা ৭ বছর বয়স থেকে শিশুরা মাইক্রোওয়েভ ব্যবহার করতে শেখে।
৪.
একটা ৩ বছর বয়সী ছেলের কণ্ঠ একটা রেস্টুরেন্ট ভর্তি ২০০ পূর্ণবয়স্ক লোকের কোলাহলের চেয়েও তীব্র।
৫.
সাধারণত: সন্তান তাদের বাবা থেকে পায় উচ্চতা আর মা থেকে পায় ওজন।
৬.
৪ বছর বয়সী ছেলেমেয়েরা প্রতিদিন গড়ে ৪৩৭টা প্রশ্ন করে।
৭.
টেলিভিশন দেখা বাচ্চাদের ব্যথা কমাতে সাহায্য করে।
৮.
সম্রাট ফারাও দ্বিতীয় তিনি নাকি ১৬০ সন্তানের বাবা ছিলেন।
৯.
৬ বছরের নীচের বাচ্চাদের হাত পুড়িয়ে ফেলা বা হাতে আঘাত পাওয়ার ঝুঁকি সবচেয়ে বেশি।
১০.
১৬০০ খৃষ্টাব্দ পর্যন্ত ইংল্যান্ডে শিশুরা ৭ বছর বয়সে পা দিলেই পোষাক পরানো হতো।
১১.
গড়ে একটি মা তার জীবদদশায় ৬.৮৯ টি শিশু জন্মদান করে ।
১২.
শিশু জন্মহার সবচেয়ে বেশি নাইজারে,সেখানে একটি মা গড়ে ৭.৫৮ টি শিশু জন্ম দেয় আর সবচেয়ে কম সিঙ্গাপুরে,সেখানে জন্মদানের সংখ্যা মা প্রতি গড়ে ০.৮টি ।
১৩.
শেক্সপিয়ারের ‘টুয়েলফথ নাইট’ (রচনাকাল: ১৬০১-১৬০২) হচ্ছে একমাত্র নাটক যেখানে ‘শিশু’ শব্দটি নেই।
১৪.
যুক্তরাজ্যের ১০% শিশু ২ বছর বয়স থেকে ফোন/কম্পিউটার/ট্যাবের টাচ স্ক্রিন ব্যবহার শিখে যায়।
১৫.
শিশু ১ বছর বয়সেই মা যা তাকে বলে তার ৭০% বুঝে ফেলে যদিও সে সময় শিশু সামান্য ধ্বনি ছাড়া তেমন কিছু বলতে পারে না।
১৬.
প্রি স্কুল বয়সেই ছেলেমেয়েরা নিজেদের আলাদা ব্যক্তি হিসাবে ভাবতে শুরু করে।
১৭.
সাধারণত: শিশু তার ৩ বছর বয়সের নীচের স্মৃতি মনে করতে পারে না।
১৮.
যখন কোনো শিশু দুই হাত দিয়ে তার চোখ ঢেকে ফেলে সে ভাবে তাকে বুঝি কেউ দেখতে পাচ্ছে না।
১৯.
শিশু চার মাস বয়সের আগে নুনের স্বাদ বুঝতে পারে না।
২০.
শিশু ৭ বছর বয়স থেকে নানা তথ্য তার মেমরীতে সংগঠিতভাবে সংরক্ষণ করতে পারে।
২১.
শিশু দৈনিক গড়ে ৩০০ বার হাসে ।
২২.
শিশুকে যতবেশি হোমওয়ার্ক দেয়া হবে,তার বিষণ্ণতায় ভোগার সম্ভাবনা ততো বেড়ে যাবে।
২৩.
অভিনেতা রোয়ান অ্যাটকিনসন ( মি: বিন) একবার একটা প্লেন ক্র্যাশ হওয়া থেকে বাঁচিয়েছিলেন,তাতে তার স্ত্রী ও দুই সন্তানের জীবন রক্ষা পেয়েছিল।
২৪.
কানাডার ক্যুইবেক প্রদেশ,সুইডেন ও নরওয়েতে শিশুদের কাছে কোনো পণ্যের বিজ্ঞাপন করা নিষিদ্ধ।

( বোনাস )
গবেষণায় দেখা গেছে যে শিশু ভালো মিথ্যা বলতে পারে,বড় হয়ে সে অপেক্ষাকৃত কৃতকার্য হয় ।