পুতুল পুতুল

দেওয়ান তাহমিদ



পুতুল পুতুল
-------
পুতুল পুতুল খেলবি কে রে আয়
পুতুল খেলার সময় চলে যায়।

ছেলে পুতুল, মেয়ে পুতুল মিলে
গোস্বা করে সাফ জানিয়ে দিলে
এখন তারা যখন তখন বিয়ে
করবে না আর টুপুর সিঁদুর দিয়ে।

কী হয়েছে, করছো কেন মান?
এই দ্যাখো না ধরছি দুটো কান।

পুতুলগুলো অশ্রুজলে ভাসে
কান ধরেছ, তাতে কী যায় আসে?
তবুও বড় হচ্ছ তো ঠিকঠাক
পুতুল খেলা স্মৃতি হয়েই থাক।

সবারই হায় বয়স বেড়ে যায়
আজও পুতুল খেলবি যদি আয়।

ফেরার পথে
______
অনেক হলো ঘোরাঘুরি এবার ঘরে ফেরার পালা
ঘরের নামে সাজিয়ে রাখা পুরোনো সেই বন্দীশালা।
কখন কী কাজ, সকাল-বিকাল জানিয়ে দেবে ঘড়ির কাঁটা
রাস্তাঘাটে, কোচিং-স্কুলে, চতুর্দিকেই রুটিন সাঁটা।
বৃষ্টি পড়ে, জোৎস্না নামে দেয় ভাসিয়ে শহরটাকে
একঘেয়ে সেই নিয়মগুলো ছায়ার মতোই ঘুরতে থাকে।
এমন করে চলতে গিয়ে একটু যদি পাই অবসর
হাজার রকম শর্ত এসে ঘুরতে থাকে মাথার উপর।
সেসব মেনে যায় না উড়া, ওই যে যেমন বনের টিয়ে
বাঙলাদেশের পতাকা হয়ে উড়ছে স্বাধীন সব ছাপিয়ে!

খুব ইচ্ছে হয় দিন-দুপুরে রৌদ্রে পুড়ে যাই দূরে যাই
পড়ালেখা শিকেয় তুলে নিজেই ছুটির ঘন্টা বাজাই।