এক গুচ্ছ কবিতা

মাহবুবা ফারুক

বার বার তার কাছে
তোমরা যারা আমার জন্যে সুদৃশ্য পাত্রে
জল নিয়ে অপেক্ষায় আছো
আমি থামবো বলে আশা করছো
তারা দয়া করে ক্ষমা কর
তোমরা চোখ নামিয়ে রাখো
আমি চুপি চুপি চলে যাবো তার কাছে
সে জলটুকু নেবো আমি যার জন্যে
আমার আকাশ কেটে টুকরো করেছি
বাতাস করেছি ব্যয়
বড় বেশি মূল্য দিয়ে কিনেছি
সেটুকুই নেবো আমি
পাখি আর আসেনা ফিরে কুলায়
ভালোবাসা শেষ কথা নয় আরও সত্য আছে
তোমরা আমাকে যেতে দাও তার কাছে
তার জলটুকুই নেবো আর কারও নয়
চিনতে হয়
খুব বেশি দিন নয় মাত্র কদিন আগেই আমি
বুঝতে পেরেছি আমার একজন বন্ধুও নেই
না কোনো শুভাকাঙ্ক্ষী সাহায্যে এগিয়ে আসার মত
একজন কেউ নেই চারপাশে- যদি তাই হতো
তাহলে এমন তো হতোনা যে এত বার ডাকছি
চিৎকার করি,সাহায্য চাই বাঁচা্‌ও,সাপ সাপ
না কেউ আসেনি কাউকে পেলাম না আমার কাছে
ছোবল খেতে খেতে আমি নীল হয়েছি বিষে একা
হয়ে গেছি মৃত্যুর কাছাকাছি অবহেলিত কেউ
কিন্তু এমন তো হবার কথা নয় হতে পারেনা ।

এই যে আমার বন্ধুরা দাঁড়িয়েছে পাশে এই যে
সাহস, ধৈর্য, পরিশ্রম, সাপের বিরুদ্ধে সবাই ,
সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছে একসাথে ওরা
প্রতিবাদী লাঠি ভর করে দাঁড়াই মৃত্যুকে ভুলে ,
অভিমানে শিখেছি সহজেই ত্যাগ করতে মোহ ,
কষ্টে শিখেছি তীক্ষ্ণ বোধ, মমতা, ভালোবাসা, শক্তি ,
আর কাকে প্রয়োজন তবে ঘোর বিপদের দিনে?
এদের সাথে হাঁটি সংগ্রামে জয়ের কঠিন পথ ।
খুব বেশি দিন আগে না হলেও এটা জেনেছি যে
জানাটাই বড় কথা ।বন্ধু চিনেছি তো !

কান্নার রঙ কেমন ?
একদিন জানতে চেয়েছিলে বলা হয়নি
কাছে ছিলে বলে
তোমার চলে যাবার পর কান্না চিনেছি
হাহাকারের যেমন- তেমন রঙ থাকে কান্নার
পাহাড় চূড়োয় যেমন বরফ কাঁচের মতন
এই যে দেখ বুকের ভাঁজে ছায়া ছায়া
গাঢ় কষ্ট চাপ চাপ এখানে
এখানেই কান্না জমা থাকে খুব গোপনে
এই যে দেখ চোখ এখানে
টলটলে জলের আগুন এখানেই থাকে
কষ্ট এসে ছুঁয়ে দিলে সে আঁকে ছবি
লিখে গল্প বাষ্প যেমন খোঁজে নিজের পথ
এই দেখ বুকের গহিনে এখানে ঝাপসা সব
ছাই রঙ ধোঁয়া উড়ে উড়ে ভেতর পোড়ায়
কুয়াশার মতো শীতের রাতের মতো ভেজা
শিশিরের মতো স্বচ্ছ স্ফটিক দানা জমে
অথচ চোখ পুড়ে যায় আগুনে
চেনা ছবি অস্পষ্ট হয়ে যায়
সব সুখ শুষে নেয় যে তার কোনো রঙ থাকেনা।


বার বার তার কাছে
তোমরা যারা আমার জন্যে সুদৃশ্য পাত্রে
সুস্বাদু জল নিয়ে অপেক্ষায় আছো
আমি থামবো বলে আশা করছো
তারা দয়া করে ক্ষমা কর
তোমরা চোখ নামিয়ে রাখো
আমি চুপি চুপি চলে যাবো তার কাছে
সে জলটুকু নেবো আমি যার জন্যে
আমার আকাশ কেটে টুকরো করেছি
বাতাস করেছি ব্যয়
বড় বেশি মূল্য দিয়ে কিনেছি
সেটুকুই নেবো আমি
পাখি আর আসেনা ফিরে কুলায়
ভালোবাসা শেষ কথা নয় আরও সত্য আছে
তোমরা আমাকে যেতে দাও তার কাছে
তার জলটুকুই নেবো আর কারও নয়।


পূর্ণ করে দাও
পাখিকে বলি, পাখি পালক দিও না
উড়তে শেখাও
নদীকে বলি, নদী জল দিও না
চলতে শেখাও
শ্যাওলার কাছে শিখবো না
পথ আটকানোর সূত্র
শামুকের কাছে চাইবো না
লুকিয়ে থাকার মন্ত্র ।


আহবান
সূর্যটা সারাদিন আমিই রাখি
রাতে পাঠাই তোমার কাছে
এক মহাদেশে আমি আর তুমি
আরেক দূরের মহাদেশ
সূর্য হাত বদল করে এসো
সবাই আলোতে থাকি ।