তিনটি শূন্যকবিতা

রিমি দে

এক
আলো ভেঙে ভেঙে খেয়ে নিচ্ছে পথ
জল বেয়ে যে জানালা উঠে এসেছিল একদিন
সে পথেও গান শুষে গেছে

সারারাত পূবদিকে থাকি
খুব ভোরে আলো গুলে খাই
দেখি গাঢ কালো হয়ে গেছে আমার প্রচ্ছদ

ঢেকে গেছে কবিতার কালো অক্ষর


দুই
বরং পূর্ণ হই এসো আর পুড়ে যাওয়া ফুলগুলিকে
ঠেলে দেই বিচ্ছেদের হাসির কাছে
আপাদ্মস্তক লেগে আছে আয়ত বারান্দা
এই অর্ধেক ঘর ও অর্ধেক বাইরের
তীক্ষ্ণ আলো দেখতে দেখতে পুড়ে যাওয়াকে গ্রহন করি


তিন
বিক্ষত হবার পরও অনিবার্যভাবেই আরো ফালাফালা
জংগ্ল বেটে চেপে ধ্রি তাতে
চিৎকার করে বলি
সহ্য কর ! সহ্য কর!