তিনটি কবিতা

শামীম হোসেন

নদীচরে ন্যুড স্টাডি
আমাকে নদীর মুখোমুখি দাঁড় করিয়ে গেছে জলের ইজেল
কোমরে বৈঠা বেঁধে সারাটা দুপুর এঁকেছি নৌকার ছবি।
কাঠের স্তনে রঙ মাখতে মাখতে ভুলে গেছি চিত্রের ভাষা
হাওয়াবদলের ঋতু তুলির আগা থেকে ছোঁ মরে নিয়ে গেল
গুপ্ত নীলের রেখা...

জলের শাড়ি ছাড়া চিকচিক করে চরের শরীর।

ভায়োলিন
আমাদের চোখ নেই কোনো
গন্ধ শুঁকে চলি-হাঁটি, শুনি গান
ধ্বনির জাফরানে ছড়িয়ে আছে নদীর হৃদয়
ঘুটঘুটে অন্ধকারে
চালতা পাতায় শুকিয়ে গেছে পাখিটুস দুপুরের ঘ্রাণ।

অন্ধ
চশমা পকেটে থাকে, মাঠে পোড়ে চোখের পরান