সুধাবিষে

সংহিতা সান্যাল

অনাবশ্যক পর্দা ওড়ে, হাওয়ার গায়ে জ্বর
বিকেল মাখে হলুদবাটা, রাত্রি দুধেল সর ।
গাছের গায়ে পতাকারং... ফুলের বুকে ধুলো...
কে যেন কাল দুপুররাতে ওপাশ ফিরে শুল ।
বাক্সবন্দি কাগজগুঁড়ো... মাখন-ত্বকে জ্বালা...
কাদের যেন ঘনিয়ে আসে সর্বনাশের পালা ।

আলতো মেসেজ, নখের আগায় রঙের মত সুখ...
একটি চোখে কাজলনদী, অন্যটি মিথ্যুক
ফাগুন যদি এক কলি গান, আনন্দে স্বর ভাঙা,
প্রহরশেষের আলোয় অমনি চৈতালিটিও রাঙা !
মধ্যরাতে চন্দ্রাহত কোকিল কাদের পাড়ায়...
কোথায় যেন এমনভাবেও বসন্ত হাত বাড়ায় !