শিফ্টিং

শান্তনু ভট্টাচার্য

শিফ্টিং


অন্তহীন উৎকণ্ঠা নিয়ে ঝুল বারান্দাটা
বড় রাস্তার দিকে তাকিয়ে দেখছে ঝুঁকে

হ‍ৃদপিন্ডে তাঁর হাতুড়ির মন্দাক্রান্তা

মূল ফটকের পাশে প্রহরীর মতো
দাঁড়িয়ে থাকা জাম গাছ-যার মাথায় আজও
মধ্য রাতের চাঁদ বিলি কেটে শুনিয়ে যায়
রূপালি মালকোষ...

কান পেতে শুনছে সে শাণিত করাতের আহির ভৈরব।

স্মৃতির ছোপধরা শাড়ি পরে অন্ধকার চেটেপুটে খায় বিষন্নতা..রকমারি মশলার গন্ধবাতাস..
চুড়ির ঠুংঠাং...মেজবাবুর দরবারি কানারা
ভারি দেরাজ টানার শব্দ..আর দাঁড়ে পোষা পাখির
কে? কে? প্রশ্নের প্রতিধ্বনি।

মিত্তিররা সবাই এখন প্রোমোটারের শিফ্টিং এ

ঝুল বারান্দার নীচে যে উটকো লোকটা
কুন্ডুলি পাকানো কুকুরের সাথে রাত কাটায়
আবারও আশ্রয় হারাবার আগে
সেই শুধু দেখতে পায় প্রতিবাদ প্রতিরোধহীন
এ শহরে কীসের যেন থাবার দাগ
ক্রমশ বাড়তে থাকে... বাড়তেই থাকে...