কবিতাগুচ্ছ

নীলাব্জ চক্রবর্তী

বহিরাগত কবিতা
*

একটি স্নায়ুর নাম ভ্যালেনটিনা রঙ
স্মৃতি অর্থে
দৃশ্য অর্থে
এভাবে
কাগজ ভাবতে ভাবতে তিনটে মাত্রা এলো
বহিরাগতের জন্য
এলো পান-ই-প্রার্থনা
অর্থাৎ
বেঁকে যাওয়া ভাষার যে পাড়টা
নতুন কাঁচের গায়ে
বাঁধানো
পুরনো বাড়ি খালি করে
কবিতারা
ক্যাম্পে চলে গেলে
ঘর খুলে
সমস্ত বোতাম আজ বেরিয়ে পড়েছে...

---

গতির ভেতর
*

এই যে বাসের ভেতর
একটা মিষ্টি মিষ্টি দিন
অটোর ভেতর
বয়ে চলছে
একটা মিষ্টি মিষ্টি দিন
কম্যুনিকেশনের বাইরে থেকে যাওয়া
যে কবিতাটার শরীরে
চিনি পুড়েই যাচ্ছে
এখানে ওখানে
মাংসবোধের দিকে চলে যাওয়া
কিছু বিভ্রান্ত স্প্রিং
গতির ভেতর
পুরনো আঙুলের মতো ভালবাসা জমিয়ে রেখেছে
আর
কার মুখ
মনে মনে পড়ছে...

---

টেকনিক্যাল
*

যে তুমি গানের সমস্ত কাছে
কাঠের একটা দিন
খুব টেকনিক্যাল হয়ে
শুধু
সঙ্গম অবধি
আমি তো
মাংস ভেবে ভেবে
সংশয়ের ভেতরে
চলে যাওয়া
শব্দের টুকরো-টাকরা কুড়িয়ে
পরপর অনেকগুলো দ্রুত মুখোশ
টেলিফোন
ঠোঁট অবধি
কালো হরফ অবধি
খুব টেকনিক্যাল...

---