ক্যারিবিয়ান প্রজাপতি ও ফ্লাইং ব্লেণ্ডার্স

ঋষি সৌরক

ঋষি সৌরকের দুইটি কবিতা


ক্যারিবিয়ান প্রজাপতি ও ফ্লাইং ব্লেণ্ডার্স

গভীর সমুদ্রের প্রজাপতি

ফেনিল আলোর কেশদামে থেঁতলে গেলো গো মুখ
সুগন্ধের একমুখী পথ সুগন্ধের উষ্ণতা তলে শায়িত
প্রজাপতিটি আমাদের পথ ওই, আত্মহারা নাবিকের ভাষা
সহস্র নটিক্যাল বেগে এসো চুমু এসো ভাষা খাই অনিন্দ্য


প্রজাপতে: গভীরম সমুদ্রে


দাঁড়াবার জায়গা-য় দাঁড়িও না, ভেসে যাও ভেসে যাও
ছোঁয়াচ লাগলেই রঙিন হয়ে ওঠে নুন - নুনের দণ্ডিত টিলা
আলো দিয়ে মোড়া পাখনা নেড়ে নেড়ে অন্ধকারগুলি ওড়ে
এ জলযাত্রা তবু, তোমার প্রশ্নের ভেতর নেমে শুদ্ধ হই ক্রমশ


সমুদ্রের প্রজাপতি : গভীর


না চেয়েও চেয়ে আছি না-না-রকম জলের প্রণিধান
আদলের নিরাকার ওড়নাটি মিথের মত দুরুদুরু মিথ্যুক
তবু আকাশকুসুম প্রজাপতিদের ভয়েজ প্রলিপ্ত হচ্ছে
হে রাধে! অপরাধ নিও না! দিকচক্রবাল খুলি?

গলি তে গলি তে বি-গলিত

ভবিষ্যত গলির টুংটাং
গলির টুংটাং ভবিষ্যত

সেই গলি বেয়ে পালিয়ে যাচ্ছে ঝিমগন্ধরাজপথ -
বিকেলের নরম আলো চষে চোখের ভেতর ঢোকে চোখ
কতদিন তার বাঁক ঘুরিয়ে আদর দেয়া হয় নাই
আমাদের শুভেচ্ছা ফিরে আসে সে বাঁকের ছায়ামোল চুমে


টুংটাং গলির ভবিষ্যত
টুং গলির টাং ভবিষ্যত

সাইকেলের মূঢ হর্ন সাবধান করে সাবধানতা কে
কে আর ভেবেছে এসব ঘূর্ণনের মীনাক্ষী গন্তব্য
ভবিষ্যতের য-ফলায় ঝুলছে মরা প্রেমের ফিকশান
উড বি কেল কঁকিয়ে ওঠে হর্ন ডলার মতো হা-গোপন


গলির ভবিষ্যত টুংটাং
টুংটাং ভবিষ্যতের গলি


যা কিছু মাটি - মাটির গাছ - কথা দিয়ে রাখা কথা
স্তনের ভাঁজে অনুদিত চিঠি, আমাকেও দিত তোমাকেও দিত
যে বর্ণমালায় পা রেখে রেখে এতটাও নীচে নামা যায়
সেকি আমার আবিষ্কারক এর আকরিক সময়ের হা-হাতে দিলো?