আর্জেন্তিনা

আর্যনীল মুখোপাধ্যায়

খুয়ান খেলমান (১৯৩০ - ২০১৪)

আর্খেন্তিনার কবি খুয়ান খেলমান সম্প্রতি মারা গেলেন ২০১৪র জানুয়ারী মাসে। ১৯৩০ সালে খেলমানের জন্ম। বিশ শতকে আর্খেন্তিনার অন্যতম সেরা কবিদের একজন খেলমান। একাধিক কবিতাধারা ও আন্দোলনের অন্তর্ভুক্ত খেলমান সেরবান্তেস পুরষ্কার পান ২০০৭ সালে। ১৯৭৬ সালে দেশে সামরিক অভ্যুত্থানের সময় খেলমান নির্বাসন নিতে বাধ্য হন। ওঁর ছেলে ও মেয়েকে গুম করা হয়। বহু বছর পরে জানা যায় তাদের হত্যা করা হয়েছে। অমানবিকতা, নিঃসঙ্গতা, রাজনৈতিক ইতিহাসচেতনা ও অন্তর্লীন এক গাঢ় বিষাদের আবহ খেলমানের কবিতার স্বাক্ষর।

***************

বিদেশী বৃষ্টিতে (পরাজয়ের টীকা): ২৫ (১৯৮০)


ইউরোপ ছিল পুঁজিবাদের মাতৃক্রোড়, আর ক্রোড়ের সেই শিশুকে বাঁচিয়ে
রাখলো পেরু, মেহিকো আর বলিভিয়ার সোনা রুপো। লক্ষাধিক আমেরিকান
মারা যায় তাদের সন্ততিকে দুধেভাতে রাখতে, যারা ক্রমশ শক্তপোক্ত হয়ে ওঠে,
ভাষাকে প্রোন্নত করে, শিল্প, বিজ্ঞান, ভালোবাসা ও যাপনের পদ্ধতিতে মানবতার
মাত্রা বাড়ায়।

কে বলে সংস্কৃতি ঘ্রাণহীন?

আমি রোম, পারী প্রভৃতি সুন্দর সুন্দর সব শহর ঘুরে বেড়াতে বেড়াতে বুলমিশের
ভিয়া করসোতে আচমকা তাইনোদের প্রেতের গন্ধ পাই, যাদের চিবোচ্ছে আন্দালুসীয়
কুকুরের দল, অনা- দের কান ছিন্নবিচ্ছিন্ন, গন্ধ পাই অ্যাজটেকেরা তেনোশ্তিতলান
হ্রদে নিজেদের ধ্বংস করছে, বেঁটে ইনকারা ভেঙে পড়ছে পতসীতে; কেরান্দি, আরাউকান,
কঙ্গো, কারাবালি ক্রমাগত ক্রীতদাসে পরিণত, বিনাশিত।

তোমার গন্ধ প্রাচীন নয় ইউরোপ।

জোড়া মানবতার গন্ধ পাও তুমি, যারা খুন করে, আর যারা হয়।

শতাব্দী পেরিয়ে যায়, পচে যায় পরাজিতের সমস্ত সৌন্দর্য তোমার ভ্রুকুটির ওপর।